No icon

আত্মতৃপ্তিতে ভুগতে চান না বাংলাদেশ কোচ

সাফ ফুটবলে তিন ম্যাচের দুটিতে জয়ী হয়ে ছয় পয়েন্ট নিয়েও সেমিফাইনাল খেলতে পারেনি স্বাগতিক বাংলাদেশ। অথচ দুই ম্যাচের একটিতে ড্র নিয়ে এক পয়েন্ট সংগ্রহ করেই সেমিফাইনাল খেলার সুযোগ পেয়েছিল মালদ্বীপ। তাও টস ভাগ্যে। শেষ পর্যন্ত ভারতকে হারিয়ে সাফের শিরোপা জিতে নেয় দলটি।

যে কারণে বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে একটু বেশিই সর্তক বাংলাদেশ। এই টুর্নামেন্টে স্বাগতিকদের প্রথম লক্ষ্য সেমিফাইনাল। তা পূরণ হতে আরো অপেক্ষা করতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। উদ্বোধনী ম্যাচে লাওসকে হারিয়ে বাংলাদেশ সেমির পথে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। স্বাগতিকদের গ্রুপ পর্ব টপকানোর হিসেব মিলে যেতে পারে আগামী কাল ফিলিপাইন-লাওস ম্যাচের ফলাফলেই।

ওই ম্যাচে লাওস হেরে গেলে কিংবা ড্র করলেই এক ম্যাচ বাকী থাকতে শেষ চারে জায়গা পেয়ে যাবে বাংলাদেশ। তবে সমীকরণের সাহায্য পাওয়ার ভাগ্যটা বাংলাদেশকে কমই। গত মাসে শেষ হওয়া সাফ সুজুকি কাপ তার তরতাজা উদাহরণ। সাফের হতাশার বিদায়ের পর ফুটবলাররা এখন দৃঢ় প্রতিজ্ঞ বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপে ভালো কিছু করার। শুরুটা প্রত্যাশামতই হয়েছে। তাই বলে তারা আত্মতৃপ্তিতে ভুগছেন না।

জাতির জনকের নামের টুর্নামেন্ট বঙ্গবন্ধু গোল্ডকাপ ফুটবলের পঞ্চম আসর নানা কারণে ব্যতিক্রম। মানের দিক দিয়ে আগের চার আসর ছাড়িয়ে গেছে এবার। এই প্রথম খেলা হচ্ছে ৩ ভেন্যুতে। চারদিকে সাজসাজ রব। এরই মাঝে সোমবার বাড়তি রঙ লেগেছে জামাল ভুঁইয়াদের জয়ে। সাফের হতাশা কাটিয়ে বাংলাদেশ ফুটবল দল নতুন দিগন্তের সামনে দাঁড়িয়ে। লাওসের বিপক্ষে ম্যাচটির উপরই বেশি জোর দিয়েছিল বাংলাদেশ। গত মার্চে এ দলটির বিপক্ষে তাদের মাটিতে ২ গোলে পিছিয়ে পড়েও ম্যাচ ড্র করেছিল বাংলাদেশ। সেই দলটিকে ঘরের মাঠে হারানোর প্রতিজ্ঞা ছিল জামাল ভুঁইয়া, বিপলু আহমেদ আর সুফিলদের।

কোচ জেমি ডে বারবার বলেছিলেন লাওসকে হারিয়ে টুর্নামেন্ট শুরু করতে পারলে সেমিফাইনালের পথ মসৃণ হবে তাদের। শুরুটা প্রত্যাশা মতোই হয়েছে লাল-সবুজদের। সিলেট উপশহরের টিম হোটেলে লাওসবধের নায়ক বিপলু আহমেদ, মাঝ মাঠের কৃতি ফুটবলার মাসুক মিয়া জনি ও আক্রমণভাগে অনেকদিন পর ভালো খেলা নাবীব নেওয়াজ জীবনদের পাওয়া গেলো বেশ চনমনে।

জয়ের পর কেমন কাটল- জানতে চাইলেই দলের সবচেয়ে সিনিয়র ফুটবলার ওয়ালি ফয়সাল বলেন, 'আমাদের লক্ষ্য এখনো পুরণ হয়নি। শুরুটা জয় দিয়ে করার ইচ্ছে ছিলো, পূরণ হয়েছে। আমাদের আগে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করতে হবে।'

একই সুর লাওস ম্যাচের নায়ক লোকাল বয় বিপলু আহমেদেরও। তিনি বলেন 'আমাদের আরো ম্যাচ আছে। প্রথম লক্ষ্য সেমিফাইনালে ওঠা। ওই লক্ষ্য পূরণেই এখন আমাদের বেশি মনসংযোগ। আমরা জয় দিয়ে শুরু করেছি, সামনের ম্যাচগুলোও জিততে চাই।'

আগের দিন বৃষ্টির কারণে অতিরিক্ত ভারি ছিল মাঠ। তাই লাওস ম্যাচে টুকটাক আঘাত পেয়েছেন অনেক ফুটবলার। যে কারণে টিম হোটেলেই দিন কেটেছে ফুটবলারদের। সকালে হালকা সুইমিংয়ের পর আইসবাথ করেছেন ফুটবলাররা। যারা একাদশে ছিলেন না তাদের নিয়ে জিম সেশন করেছেন ফিটনেস ট্রেনার। অতীতের ভুল থেকে শিক্ষা নিয়ে কোচ জেমি ডেকেও বেশ সিরিয়াস মনে হয়েছে।

আজ টিম হোটেলের লবিতে এই কোচ বলেন, 'সাফ চ্যাম্পিয়নশিপে আমরাই কিন্তু সবচেয়ে সুবিধা জনক অবস্থানে ছিলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত সেমিফাইনালই খেলতে পারিনি। সুতরাং আত্মতুষ্টিতে ভোগার কিছু হয়নি। আমি টিম মিটিংয়ে সবাইকে বলেছি আগে তোমরা প্রথম টার্গেট পূর্ণ কর। তারপর বিশ্রামের কথা ভাবতে পার।'

Comment As:

Comment (0)