No icon

আমার সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করেছি - শামীম

কালজয়ী ডেস্কঃ  ভারতের মুখোমুখি হলেই যেন কী হয়ে যায় বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের! সিনিয়র দল বলুন আর বয়সভিত্তিক দল বলুন, তীরে এসে তরী ডোবাতে ব্যস্ত থাকে সবাই। কদিন আগে এশিয়া কাপের ফাইনালে শেষ বলে জিততে পারেনি জাতীয় দল। সেই পদাঙ্ক অনুসরণ করেই কিনা আজ বৃহস্পতিবার সেই ভারতের বিপক্ষেই জিততে জিততে ২ রানে হেরে গেল অনূর্ধ্ব-১৯ দল! চারিদিকে যতই সমালোচনা হোক না কেন; যুবাদের বুকটা কিন্তু ভেঙে যাচ্ছে! মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে  যুব এশিয়া কাপের সেমি-ফাইনালে ভারতের ১৭২ রান তাড়ায় ১৭০ রানে থমকে যায় বাংলাদেশের ইনিংস। হারের পর হতাশায়, বেদনায় যেন উঠে দাঁড়ানোর শক্তি ছিল না বাংলাদেশের দুই ব্যাটসম্যান রকিবুল হাসান ও মিনহাজুর রহমানের। দুজনেই ক্রিজের দুই প্রান্তে শুয়ে পড়েন। ভারতের ক্রিকেটাররা এসে তাদের স্বান্ত্বনা দেন। ম্যাচ শেষে শামিম হোসেন জানালেন, ভারতের কাছে অমন নাটকীয় হারের পর ভীষণ ভেঙে পড়েছিলেন তারা।

শামিম বলেন, 'এমন হারের কষ্টটা বলে বোঝানো যাবে না। আমি আমার সর্বোচ্চ দিয়ে চেষ্টা করেছিলাম, ম্যাচটা শেষ করে আসার জন্য। (এই সময় কেঁদে ফেলেন তিনি) .......আমার লক্ষ্য ছিল, আমি ম্যাচটা শেষ করে আসব। আমার সর্বোচ্চটা দিয়ে চেষ্টা করেছি। আমাদের ব্যাটসম্যানরা মোটামুটি ভালোই করেছে, কিন্তু ম্যাচ শেষ করতে পারেনি। আমাদের কিছু কিছু জায়গায় ঘাটতি ছিল। সামনে আমাদের যেসব টুর্নামেন্টগুলো হবে, আমরা চেষ্টা করব এই ছোট ছোট ভুলগুলোর পুনরাবৃত্তি না হয়।

উল্লেখ্য, লক্ষ্য তাড়ায় ৬৫ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে চাপে পড়ে গিয়েছিল বাংলাদেশ। সেখান থেকে কিপার আকবর আলীর সঙ্গে ৭৪ রানের জুটিতে দলকে ম্যাচে ফিরিয়েছিলেন শামিম। ম্যাচের এক পর্যায়ে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ৩৪ রান। তখন ওভার বাকি ছিল ১৫টি, হাতে ছিল ৫ উইকেট। সেখান থেকে দলের হার কোনোভাবেই মানতে পারছে না একমাত্র হাফ সেঞ্চুরিয়ান শামিম।

Comment As:

Comment (0)